পর্যটক কমছে: আর্থিক ক্ষতির শঙ্কায় যুক্তরাষ্ট্রের পর্যটন সংশ্লিষ্টরা

TOURISM_landmarks.jpg

প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নতুন ভ্রমণনীতির নিষেধাজ্ঞার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে পর্যটক কমে যাওয়ায় আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কা করছে দেশটির বিশ্লেষকরা।

বেলাল ‍ভুট্টো: প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নতুন ভ্রমণনীতির নিষেধাজ্ঞার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে পর্যটক কমে যাওয়ায় আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কা করছে দেশটির বিশ্লেষকরা।

অব্যাহত হারে পর্যটক কমে যাচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে , ফিলাডেলফিয়াভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ‘ট্যুরিজম ইকনোমিক্স’-র অনুসন্ধানে উঠে এসেছে এসব তথ্য। পর্যটক কমে যাওযার এ ধারা অব্যাহত থাকলে, দেশটিতে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ দাড়াবে ৭৪০ কোটি ডলার। প্রায় অর্ধকোটি পর্যটকের সংখ্যা কমে যাবে।

চলতি বছরের ২০ জানুয়ারিতে ট্রাম্প দায়িত্ব নেওয়া পর  থেকে এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত ট্যুরিস্ট আসার পরিমাণ হ্রাস পেয়েছে বলে অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসোছে এসব তথ্য। দেশটিতে আয়ারল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ড থেকে আসা ফ্লাইট কমেছে  কমেছে ৩৫ শতাংশ। তাছাড়া চীন এবং ইরাক থেকে যুক্তরাষ্ট্রে আসা ফ্লাইট কমেছে ৪০ শতাংশ।

আর এতে করে দেশিটি দৈনিক প্রায় ২ হাজার পর্যটক হারাচ্ছে, ব্যাপারটি ভাবিয়ো তুলছে দেশটির পর্যটক সংশ্লিষ্টদের।

এরকম সংকট পরিস্তিতির উত্তরণে অবস্থার প্রেসিডেনট ট্রাম্প প্রশাসন প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ না নিলে আসছে বছর পর্যটকের পরিমান আরো কমে ৬৩ লাখে দাঁড়াবে বলে আশংকা করছে গবেষণা সংস্থা ।  এতে আর্থিক ক্ষতির পরিমাণ বেড়ে দাঁড়াবে ১০৮০ কোটি ডলার।

তবে চমকপ্রদ তথ্য হচ্ছে, দেশটিতে মোট পর্যটকের সংখ্যা হ্রাস পেলেও ট্রাম্পের এ সময়ে রাশিয়া থেকে আসা পর্যটকের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে । গড়পরতা পর্যটকের সংখ্যা হ্রাস পেতে থাকলেও এ সময় রাশিয়া থেকে আসা পর্যটকের সংখ্যা ৬০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

এই অবস্থা চলতে থাকলে, সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে ফ্লোরিডার মায়ামি, এরপর সানফ্রান্সিসকো ও নিউ ইয়র্ক।

Top