বরিশালের শাপলা বিলকে আকর্ষনীয় করার উদ্যোগ

lotus-bill.jpg

সরকারের উদ্ভাধনী কাজের অন্যতম হলো জেলা ভিত্তিক ব্যান্ডিং । বিভিন্ন জেলার নিজস্ব পণ্য ঐতিহ্য ও সম্পদ ব্যবহার করে একদিকে দেশের উন্নয়ন আর অন্যদিকে জেলা ও অঞ্চলের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করা।

বরিশাল জেলাকে বাইরের মানুষের কাছে আকর্ষণীয় করতে তিনটি বিষয়ে নিয়ে কাজ করবে জেলা প্রশাসন।

বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান এ তথ্য বাংলানিউজকে বলেন, উদ্যোগগুলো মধ্যে একটি হলো বরিশালকে পর্যটন জেলা হিসেবে ঘোষণা, পর্যটকদের জন্য জেলায় চার থেকে পাঁচটি স্পট নির্ধারণ করা হয়েছে।  তারমধ্যে একটা হলো এই সাতলা বা শাপলার বিল।

উজিরপুরের সাতলা ইউনিয়নের বিশাল একটা অংশ নিয়ে শাপলার বিল। সেখানে তিন রঙয়ের শাপলা ফুটে। বিলকে পর্যটকদের কাছে আরো আকষর্নীয় করতে কয়েকটি উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

এগুলো হলো পাবলিক ট্রান্সপোর্ট থাকা, যোগাযোগ ব্যবস্থা আর একটু উন্নত করা। বিলের সৌন্দর্য উপভোগ করতে পর্যটকদের উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের যৌথ উদ্যোগে আমরা সরকারিভাবে নৌকার ব্যবস্থা করা। নিরাপত্তার জন্য পুলিশ ক্যাম্প অথবা আনসার ক্যাম্প স্থাপন করা।

তিনি আরো বলেন, পর্যটনের জন্য যদি একটি কমপ্লেক্স গড়ে তোলা যায়। সে চিন্তাভাবনাও রয়েছে। যেখানে থাকার ব্যবস্থার পাশাপাশি ফ্রেশ হওয়া, বিশ্রাম ও নামাজের ব্যবস্থা থাকবে আবার একটু স্ন্যাক্সের ব্যবস্থা থাকবে। একটা আইটি সেন্টারও থাকলো, যেখানে মোবাইল চার্জ ও বসে কথা বলা যাবে। এক কথায় একটি প্যাকেজ আমরা সেখানে করতে চাচ্ছি। আর সেটা প্রচারের দরকার রয়েছে। এজন্য আমরা পত্রিকা, অনলাইন মিডিয়া, সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্যাপক প্রচারের ব্যবস্থা করবো অবশ্যই।

জেলা প্রশাসক আরো জানান, শাপলার বিলের সৌন্দর্য  ভালোভাবে তুলে ধরতে পারি অনলাইন বা ইন্টারনেটে। তা হলে একদিকে এলাকার বহিঃবিশ্বে ও অন্য জেলার মানুষের কাছে ফুটিয়ে তুলতে পারবো, আবার স্থানীয়রাও এ সংশ্লিষ্ট আয় উপার্জনের পথ খুঁজে পাবে।শাপলার বিলআমাদের একটি সুনির্দিষ্ট চমৎকার পরিকল্পনা রয়েছে। বরিশালকে বাইরের মানুষের কাছে আকর্ষনীয় করে তুলতে যেসব পর্যটন এলাকা আমরা বেছে নিয়েছে তার মধ্যে এ সাতলার বিল তথা শাপলার বিল অন্যতম।

সৌজন্য: বাংলানিউজ

Top